ইন্টারন্যাশনাল নাইটে আমাদের শিশুরা 

সুবীর কাস্মীর পেরেরা:
প্রতিবারের ন্যায় এবারও যো যেন লিলিক ইলেমেন্টারি স্কুলে উদযাপিত হলো ইন্টারন্যাশনাল নাইট। ভিবিন্ন দেশের খাবার ও সংস্কৃতি তোলে ধরাই এই অনুষ্ঠানের মূল লক্ষ্য। খাবার, দেশীয় সংস্কৃতির পাশাপাশি ছিল দেশীয় পোশাকে সজ্জিত নানা দেশের মানুষ।
অনুষ্ঠানের শুরুতে পরিবেশন করা হয় ভিবিন্ন দেশের খাবার। স্কুলের অভিভাবকদের দ্বারা তৈরি এই মজাদার খাবার আগত সবার জন্য উন্মুক্ত ছিল। দক্ষিণ আমেরিকার সালভাদর, ব্রাজিলিয়ান, মেক্সিকান, চিলি থেকে শুরু করে চাইনিজ, ভিয়েতনাম ও আমেরিকান খাবার   টেবিলে শুভা পাচ্ছিলো।
খাবারের পর পর নিজ নিজ দেশের প্লেকার্ড বহন করে এক এক করে শিশুরা মঞ্চে উপস্থিত হলে সবাই করতালি দিয়ে তাদের শুভেচ্ছা জানায়। এই সময় বাংলাদেশের প্লেকার্ড হাতে এলিজাবেথ, পিটার, স্যান্ড্রা ও রীতি মঞ্চের দিকে যাওয়ার সময় উপস্থিত বাংলাদেশিরা ‘বাংলাদেশ’ বাংলাদেশ’ অভিন্দনন জানাচ্ছিল।
স্কুলের শিক্ষিকাদের উপস্থাপনায় প্রথমে আমেরিকার জাতীয় সংগীত পরিবেশন করে তিন ক্ষুদে শিক্ষার্থী।
সালভাদরের শিক্ষার্থী স্পেনিশ ভাষায় সংগীত পরিবেশন করে সবাইকে মাত করে দেয়। সালভাদরের এক পিতা তার দুই কন্যা নিয়ে আঞ্চলিক নৃত্য পরিবেশন করেন।
আমেরিকান-আফ্রিকান শিক্ষার্থী আফ্রিকান ‘টুমবুম’ নৃত্য পরিবেশন করে।
এর পর বাংলাদেশী শিক্ষার্থী এলিজাবেথ, পিটার, স্যান্ড্রা ও রীতি বৈশাখী নৃত্যের তালে দর্শকদের মাতিয়ে রাখে।
শেষে ইন্সটিন হাই স্কুলের শিক্ষার্থীদের দলীয় নাচের মাধ্যমে শেষ হয় ইন্টারন্যাশনাল নাইট ২০১৭।