তপস্যাকাল

(তপস্যাকাল ২০১৭ উপলক্ষে পুণ্যপিতা পোপ ফ্রান্সিস-এর বাণীর আলোকে)

প্রদীপ মার্সেল রোজারিও

 

তপস্যাকাল একটি নব সূচনা, একটি পথ

জানায় আমাদের মন-পরিবর্তনের আমন্ত্রণ,

খ্রিস্টের সাথে বন্ধুত্বে বেড়ে উঠতে উঠতে

যেন করতে পারি পবিত্রতা অর্জন।

 

তপস্যাকাল ‘সমস্ত অন্তর দিয়ে’

জানায় ঈশ্বরের কাছে ফেরার আহ্বান,

আমাদের নিয়ে চলে সুনির্দিষ্ট গন্তব্যে

মৃত্যুর উপর খ্রিস্টের বিজয়ই-তো মহান পুনরুত্থান।

 

তপস্যাকাল মোক্ষম সময়

আধ্যাত্মিক জীবন গভীরতায় নিয়ে যাওয়ার জন্য,

উপবাস, প্রার্থনা, দান এসবের ভিত্তি

ঐশ্বাবণী অনুধাবনের আমন্ত্রণে আমরা হতে পারি ধন্য।

 

অর্থের প্রতি লালসা সমস্ত পাপের মূল

অর্থের প্রতি মোহ, মিথ্যা মর্যাদা, অহংকারে পাপ হয় প্রসারিত,

অর্থ-সম্পদের বন্ধনে আটকা পড়ে গোটা জগৎ হয় স্বার্থপর

স্বার্থপরতায় ভালোবাসার স্থান নেই, স্বার্থপরতায় শান্তি হয় বিঘ্নিত।

 

অহংকারে, অহংকারে ভুলে যেন না যাই মানুষ মরণশীল

নৈতিক অবনমনের নীচের ধাপ অহংকার,

অর্থ-সম্পদ ও ঈশ্বর এ দুইয়ের সেবা করতে গিয়ে

ভুলে যেন না যাই ঈশ্বরের বাণী আমাদের জন্য মহান উপহার।

 

তপস্যাকালে এসো

খ্রিস্টের সাথে আমাদের সম্পর্ক্য করি নবায়ন,

খ্রিস্টের বাণী, সাক্রামেন্ত এবং দরিদ্র প্রতিবেশীকে ভালোবেসে

পুনরুত্থানের অনাবিল আনন্দে করি জীবন-যাপন।

০০-০০